বাঁকুড়ার পাত্রসায়েরে সেলিমের জনসভা ও পদযাত্রায় মানুষের ঢল

বাঁকুড়ার পাত্রসায়েরে সেলিমের জনসভা ও পদযাত্রায় মানুষের ঢল

সুদীপ সেন, বাঁকুড়া: বিগত বিধানসভা নির্বাচনে বাঁকুড়ার লাল মাটি ফ্যাকাসে হতে শুরু করে। লোকসভা নির্বাচনে তা আরো ক্ষয়প্রাপ্ত হয়। জেলার আসনগুলিতে তৃণমূল ও বামেদের সরিয়ে জয়লাভ করে বিজেপি। বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের পর থেকেই শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের ধারাবাহিক আক্রমণ, সন্ত্রাসে কোনঠাসা হয়ে পড়ে সিপিআই(এম)কর্মী, সমর্থক ও নেতৃত্ব। অসংখ্য মানুষকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়। সেই ইতিহাস মানুষ ভুলে যায়নি। বাঁকুড়ার সিপিআই(এম) সম্পাদক অজিত পতি সেকথা স্মরণ করিয়ে দেন। রাজ্যে ক্ষমতা বেড়েছে বিজেপির, দেশে ক্ষমতায় তারা। তাদের রাজনৈতিক কাজ কর্ম দেশকে সঠিক পথে নিয়ে যাচ্ছেনা বলে মনে করছে বিরোধী দলগুলি। এন, আর, সি, নিয়ে গোটা দেশ এখন তোলপাড়। তারই প্রতিবাদে ও বিভিন্ন দাবি নিয়ে সিপিআই(এম) বাঁকুড়া জেলা কমিটির ডাকে পাত্রসায়ের থেকে রসুলপুর পদযাত্রা ও পাত্রসায়েরে জনসভা অনুষ্ঠিত হলো। সিপিআই(এম) নেতা মহম্মদ সেলিম, অজিত পতি ও অন্যান্য নেতৃত্বরা এই পদযাত্রা ও জনসভায় যোগদান করেন। পদযাত্রা ও জনসভায় ভয় ভেঙে সাধারণ মানুষের ব্যাপক উপস্হিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। সেলিম তাঁর স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতে স্পষ্টভাষায় বিজেপি কে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি, বেকারদের নিয়ে ছেলে খেলা করা, কৃষক, শ্রমিক দের পাশে না দাঁড়ানো ও এন, আর, সি নিয়ে তুলোধনা করেন। এন,আর, সি নিয়ে তিনি মানুষের উদ্দেশ্যে বলেন, কারও বাবার ক্ষমতা নেই পশ্চিমবঙ্গে এন, আর , সি করে একজনকেও রাজ্যের বাইরে করে। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কেও তিনি ছাড়েন নি।তাদের সন্ত্রাস, ভ্রান্ত জনবিরোধী নীতি, রাজ্যের ক্ষতি করছে, এই সব থেকে তিনি মানুষকে দেশ ও রাজ্যের দুই শাসক দলের বিরুদ্ধে সঙ্গবদ্ধ হয়ে লড়াই করার আহবান জানান।