ট্রাম্প ‘মার্কিন ভাইরাস’! বিঁধলেন হলিউড অভিনেতা

আন্তর্জাতিক, নিজস্ব প্রতিবেদন,
পি এম নিউজ ৩৬৫, এপ্রিল ৩,২০২০,শুক্রবার 

হলিউড অভিনেতা অ্যালেক বালডউইন বরাবরের মতো ট্রাম্প কট্টর সমালোচক। এদিন তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইরাস বলে ব্যঙ্গ করলেন। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইরাস এবং এই ভাইরাসটি গত তিনবছর পূর্বে আমেরিকায় প্রবেশ করে যার ভ্যাকসিন গত নভেম্বরের উদ্ভব হয়েছে। ‘

কট্টর এই ট্রাম্প সমালোচক অ্যালেক বালডউইন মঙ্গলবার আরও যোগ করেন যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই “মার্কিন ভাইরাস”, করোনাভাইরাসের সাথে মিলিত হয়েছেন যা সারা বিশ্বে হাজার হাজার লোককে হত্যা করেছে এবং আজও হত্যা অব্যাহত রয়েছে।

ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনা করে ট্যুইট মারফত বলেন,

” ট্রাম্প হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইরাস এবং এই ভাইরাসটি গত তিনবছর পূর্বে আমেরিকায় প্রবেশ করে যার ভ্যাকসিন গত নভেম্বরের উদ্ভব হয়েছে। ”

গত ফেব্রুয়ারি থেকে কোভিড -১৯ সংক্রমণ বিশ্বব্যাপী ভয়ংকর সংকট ডেকে আনলেও হলিউড এই চিত্রতারকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি এতটাই তিতিবিরক্ত যে, তিনি বলেন, ট্রাম্পই হল প্রকৃত মহামারী, যার জেরে আজ সারাবিশ্বে সংক্রমণ ছড়িয়েছে, সারা পৃথিবীতে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে! ”

“হাওয়ার্ড স্টার্ণ শো”, এর উপস্থাপক হিসেবে বালডুইন ও তাঁর স্ত্রী হিলারিয়া বলেন, ” তাঁরা বাড়িতে করোনা সংক্রমণ নিয়ে আলোচনা করেন না, তাঁদের চারজন বাচ্চাকে অহেতুক আতঙ্কিত করতে তাঁরা নারাজ। ভয় দেখিয়ে তাদের কলুষিত করতে চাইনা।”

তিনি আরও বলেন, “আমার স্ত্রী এবং আমি মিলে বাচ্চাদের সামনে নাট-বল্টু সম্পর্কেও কথা বলি না, করোনা সংক্রমণ নিয়ে ভয়ও ধরিয়ে দিই না “, বালডুইন বিষয়টিকে এভাবেই ব্যাখ্যা করেছেন। ” তিনি চান, “আমরা আমাদের বাচ্চাদের নিজের মতো হতে দিই এবং তাদেরকে তাদের জীবন উপভোগ করতে দিতে চাই।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিশ্বে করোনাভাইরাস সংক্রমণের শিকার হয়েছেন ১০ লক্ষ ৫ হাজার ৮৭১ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫১ হাজার ৬৭১ জনের। শুধু ইতালিতেই মারা গিয়েছেন ১৩,৯১৫ জন। মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়েছে স্পেনে। সেখানে এখনও পর্যন্ত ১০,০৯৬ জন এই মারণ ভাইরাসের বলি হয়েছেন।

অন্যদিকে, করোনার হটস্পট নিউ ইয়র্ক মৃত্যুর নিরিখে গোটা আমেরিকায় সর্বাগ্রে রয়েছে এই প্রাণকেন্দ্র। আমেরিকায় এখনও পর্যন্ত করোনায় মোট মৃত্যুর প্রায় অর্ধেকই নিউ ইয়র্কের। বৃহস্পতিবার সর্বশেষ রিপোর্টে জানা যাচ্ছে, আমেরিকায় ৫,৭৬৮ জন মারা গিয়েছেন। আক্রান্ত ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ৮৬০ জন।

এ ছাড়াও ইরানে ৩১৬০ জন, ব্রিটেনে ২৯২১ জন, নেদারল্যান্ডে ১০৮৩ জন, জার্মানিতে ১১০৪ জন, বেলজিয়ামে ১০০১ জন, স্যুইৎজারল্যান্ডে ৫৩৬ জন, তুরস্কে ৩৫৬ জন এবং সুইডেনে ৩০৮ জন এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণে অকালে প্রাণ হারিয়েছেন।