ভাঙড়ের বৃহত্তম ঈদের জামাত শকুনপুকুর ঈদগাহ ময়দানে বারাইপুর জেলা পুলিশের শুভেচ্ছা

কারিমুল ইসলাম,পি.এম.নিউজ, ভাঙড় : ঈদ – উল – ফিতর মুসলমানদের শ্রেষ্ঠতম পরব। দীর্ঘ একমাস যাবত কঠোর সিয়াম সাধনার পর সওয়াল মাসের প্রথম তারিখে পালিত হয় ঈদ। ঈদ মানে খুশি, সেই সকলে মিলে ভাগ করে নিতে ধনী-গরীব একসঙ্গে খোলা ময়দানে ঈদের নামাজ পড়া হয়।

তারই অঙ্গ হীসাবে শকুনপুকুর ঈদগাহে পবিত্র ঈদের জামাতের অনুষ্ঠান হয়। দীর্ঘ পাঁচ ছয় দশকের অধিক সময় ধরে এই ময়দানে নামাজ পালন হয়। প্রায় পনেরো হাজারেরও অধিক নামাজি জামাতে সামিল হন। এটি ভাঙড়ের বৃহত্তম ঈদের জামাত। পার্শ্ববর্তী প্রায় দশ বারোটি গ্রামের মানুষ এই ময়দানে ঈদের নামাজ আদায় করতে সমবেত হন। প্রতি বছরের ন্যায় এবার জায়গা সংকুলান না হওয়ায় দ্বিতীয় জামাত করতে হয়। প্রথা অনুযায়ী জামাতের ইমামতী করেন সাতুলিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার মোদারেস হাফেজ আবুবকর সাহেব। তিনি তাঁর বক্তব্যে ঈদ কে হিন্দু, মুসলিম নির্বিশেষে সার্বজনীন করে তোলার আহ্বান জানান।

উপস্থিত ছিলেন সাতুলিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার সুপারিন্টেড মাও : মহ : শেখ গোলাম মহিনুউদ্দীন তিনি তাঁর জ্ঞানগর্ভ বক্তৃতায় ঈদগাহকে কেন্দ্র করে মুসলিম সমাজের মধ্যে সেবামূলক ও শিক্ষামূলক কর্মসূচি গ্রহণের আহ্বান জানান।
ঈদগাহ কমিটির সম্পাদক মাওঃ মহঃ জবিউল্লাহ সাহেব সব্বাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানান।

ঈদের জামাতের পর বারাইপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ঈদগাহের মক্তবের ইমাম হাফেজ আবু সাঈদ মোল্লার হাতে ফুলের তোড়া এবং মিষ্টি তুলে দিয়ে সকল নামাজী গনকে শুভেচ্ছা জানাই।