কাশ্মীরে ঢুকতে বাধা, গুলাম নবী আজাদ কে ফেরত পাঠানো হলো দিল্লিতে

কাশ্মীরে ঢুকতে বাধা, গুলাম নবী আজাদ কে ফেরত পাঠানো হলো দিল্লিতে

 

পি এম নিউজ, ডিজিটাল ডেস্ক : রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা ও কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা গুলাম নবী আজাদকে জম্মু-কাশ্মীরে ঢুকতে ফের বাধা দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাঁকে জম্মু বিমান বন্দর থেকে দিল্লিতে ফেরত পাঠানো হয়। এরআগে গত ৮ আগস্টও গুলাম নবী আজাদকে শ্রীনগর বিমান বন্দরে থামিয়ে দিল্লিতে ফেরত পাঠানো হয়েছিল।

জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী গুলাম নবী আজাদের ঘনিষ্ঠ সূত্রকে উদ্ধৃত করে গণমাধ্যমে প্রকাশ, তাঁকে বিমান বন্দরের বাইরে বেরোতে দেওয়া হয়নি। রাজ্য কংগ্রেস কমিটির বৈঠকে তার যোগ দেয়ার কথা ছিল। গুলাম নবী আজাদ দুপুরের দিকে জম্মুর উদ্দেশ্যে গেলে প্রশাসনের নির্দেশে জম্মু বিমানবন্দরে তাকে বেলা আড়াইটা নাগাদ হেফাজতে নেওয়া হয়। এরপরে তাকে দিল্লিতে ফেরত পাঠানো হয়। তাঁকে বাড়ি ফিরতে অথবা জম্মু প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সদর দফতরে দলীয় বৈঠকে অংশ নিতে দেওয়া হয়নি।

ওই ঘটনায় ক্ষুব্ধ আজাদ বলেন, ‘গণতন্ত্রের জন্য এটা ঠিক নয়। মূলধারার রাজনৈতিক দলগুলো যদি সেখানে সফর করতে না পারে তাহলে কে করবে? জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন তিন মুখ্যমন্ত্রী আগেই গৃহবন্দী রয়েছেন এবং একজন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে রাজ্যে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। এটি অসহিষ্ণুতার লক্ষণ।’

গত সোমবার সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা গুলাম নবী আজাদ ৩৭০ ধারা বাতিল ও রাজ্যটি পুনর্গঠন প্রসঙ্গে বলেন, ‘মোদী সরকার ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উপত্যকার কেউ খুশি নন ওই সিদ্ধান্তে। কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা উচিত।’

অন্যদিকে, গতকালই গুলাম নবী আজাদ গণমাধ্যমে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, ‘কাশ্মীরের পরিস্থিতি ঠিক নেই। লোকেরা ভয় ও আতঙ্কের পরিবেশের মধ্যে রয়েছে। পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী জোর করে তরুণদের তুলে নিয়ে যাচ্ছে। সরকার বলুক এ পর্যন্ত কতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে?’

তিনি বলেন, ‘যদি সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় তাহলে কেন নেতাদের গৃহবন্দি করা হয়েছে? নেতাদের বাসায় আটকে রাখা হচ্ছে। লোকদের বাইরে বেরোনোয় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।’ তার প্রশ্ন- যদি সেখানে সবকিছু ঠিক থাকে তাহলে এমন নিষেধাজ্ঞা কেন আরোপ করা হচ্ছে? রাজ্যের নেতাদের অবিলম্বে মুক্তি দেয়ারও দাবি জানান কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা গুলাম নবী আজাদ।