এন.আর.এস কান্ড নিয়ে মুখ খুললেন পীরজাদা আব্বাস সিদ্দীকি

নিজস্ব সংবাদদাতা: এন.আর.এস হাসপাতালে চিকিৎসক নিগ্রহকে কেন্দ্র করে সারা রাজ্যে চিকিৎসা পরিষেবায় যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে, এবং যেভাবে বিনা চিকিৎসায় সাধারন মানুষ চরম অসুবিধার সম্মুক্ষীন হয়েছে সেই বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন, ফুরফুরা শরীফ আহলে সুন্নাতুল জামাতের কর্নধার পীরজাদা আব্বাস সিদ্দীকি আল কোরায়েশি ।
তিনি বলেন, “বাংলার সর্বত্রই একটা চক্র রাজনৈতিক সুবিধার্থে পরিকল্পিতভাবে অশান্তি সৃষ্ঠি করতে চাইছে , বাংলার ঐতিহ্যকে ধ্বংস করে রাজ্যে অরাজকতা সৃষ্ঠি করতে চাইছে‌। তাই রাজ্যের প্রশাসনের প্রধান হিসাবে মাননীয়া মূখ্যমন্ত্রীর আরও নমনীয়তার সহিত জনসাধারনের স্বার্থ দেখা উচিৎ। কেননা তিনি সমগ্র রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কোন দলের নয়।” তিনি জুনিয়ার ডাক্তারদের আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে আরো বলেন, ‘যে হাসপাতালে চিকিৎসার উপযুক্ত পরিকাঠামো নেই, চিকিৎসকদের পর্যাপ্ত সুবিধা নেই তার যথাপুযুক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে ।দিনের পর দিন পরিকাঠামোর অভাবে রোগী মারা গেলে ডাক্তারদের উপর আক্রমন শুরু করে রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। তাই ডাক্তারদের প্রতি সহানুভুতি দেখিয়ে তাঁদের নিরপাত্তার গ্যারান্টী দিক। সরকার কারন তাঁরা যদি ভীত, সন্ত্রস্ত থাকে তাহলে চিকিৎসা করবে কি ভাবে ?
এছাড়াও তিনি সমস্ত হাসপাতালে দালাল চক্রের তীব্র নিন্দা করেন ।

এখন কোন রোগীকে কলকাতায় ভর্তি করতে গেলে দালাল ধরতে হয় গরীব মানুষের নিকট থেকে মোটা টাকা নিয়ে তবেই ভর্তি হয় তাই তিনি মুখ্যমন্ত্রীর নিকট দালাল চক্র বন্ধের আবেদন জানান তিনি।
সর্বশেষে পীরজাদা আব্বাস সিদ্দীকি আল কোরয়াশী উক্ত ঘটনার পূর্নাঙ্গ নিরপেক্ষ তদন্তের দাবী জানিয়ে যারা অভিযুক্ত তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি জানিয়ে আন্দোলনকারী ডাক্তারদের সঙ্গে শীঘ্র আলোচনার মাধ্যমে দ্রুত সমস্যার সমাধান করার কথা বলেন ।