দেগঙ্গার সোহায় কুমারপুর পরশমনি শিক্ষা বীথানে ছাত্র ছাত্রীদের জন্য প্রধান শিক্ষকের মানবিক!

নিজস্ব প্রতিনিধি,পি এম নিউজ:তীব্র গরম তার উপর ক্রমাগত বিদ্যুত বিভ্রাট। ক্লাস রুমের ভিতরে ইলেকট্রিক পাখা না চলায় গরমে হাঁসফাস অবস্থা। বিকল্প বিদ্যুতের ব্যবস্থা সৌর বিদ্যুত। তা আবার বিকল দশায়।

এমনই চিত্র দেগঙ্গার সোহায় কুমারপুর পরশমনি শিক্ষা বীথানে। এই স্কুলে মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ১৭০০ জন। গরমে নাভিশ্বাস ছাত্র-ছাত্রীদের কষ্ট নিরাময়ে এগিয়ে এলেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল ছাত্তার। সিদ্ধান্ত নিলেন স্কুলের জন্য উন্নতমানের জেনারেটর কেনার। এবং তিনি নিজেই তা কেনার জন্য এক লক্ষ টাকা দান করেন। প্রধান শিক্ষকের এহেন মনোভাবে ওই বিদ্যালয়ের ৫২জন শিক্ষক শিক্ষিকা ও অশিক্ষক কর্মীদের উৎসাহিত করে। তারাও জন পিছু ২৫০০টাকা প্রাধ্ন শিক্ষকের হাতে তুলে দেন। তা শুনে এগিয়ে আসে সকল ছাত্রছাত্রী। তারও ৫০ টাকা করে প্রধানের শিক্ষককের হাতে তুলে দেন।
সংগৃহীত প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ টাকা দিয়ে খরিদ করা হয় অটোম্যাটিক জেনারেটর। গত শনিবার তার সুচনা করেন দেগঙ্গার পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মিন্টু সাহাজী।
খুশি স্কুলে পড়ুয়া থেকে অবিভাবকেরা। প্রধান শিক্ষকের এ ধরণের কাজে প্রশাংসায় সকলে।