মাদ্রাসা শিক্ষা ও সংখ্যালঘু উন্নয়ন নিয়ে প্রতারণা হচ্ছে: মোঃ রাকিব হক

নিজস্ব প্রতিনিধি,পি এম নিউজ:
বর্তমান কালে সংখ্যালঘু প্রতিষ্ঠান তথা মাদ্রাসা শিক্ষা চরম সংকটে। মাদ্রাসায় শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত কেস হাই কোর্ট থেকে সুপ্রিম পর্যন্ত গড়িয়েছে। দীর্ঘ পাঁচ বছর অধিক সময়ে ১০-১৫ হাজার শূন্য পদে অপদার্থ এম এস সি কতৃপক্ষ মাত্র ২৫০০ শিক্ষক নিয়োগ করেছে। কোন কোন প্রতিষ্ঠান একটি শিক্ষকও পায়নি, অথচ ওই প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষক অন্যত্র চলে গেছে। এই সন্ধিক্ষণে মাদ্রাসা শিক্ষা ছাত্র ছাত্রীদেরকে বিকলাঙ্গে পরিণত করে ফেলছে!
সংখ্যালঘু দফতর, সংখ্যালঘু মন্ত্রী,ও আধিকারিকরা কী করছেন?

পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা ছাত্র ইউনিয়নের রাজ্য সম্পাদক মোঃ রাকিব হক বলেন,শিক্ষক নিয়োগ ও সংখ্যালঘু উন্নয়ন কেন্দ্রিক অতিদ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে,”পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা ছাত্র ইউনিয়ন” – রাজ্য জুড়ে মাদ্রাসাগুলিতে পঠন পাঠন বন্ধ করে চরম আন্দোলনের ডাক দেবে।
“মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন” এর আধিকারিকদের পদচ্যুত করতে বাধ্য করবে।
মাদ্রাসা শিক্ষা ও আলিয়া অধীন থিওলোজি সেন্টারগুলি সম্পর্কে আলিয়া কতৃপক্ষের প্রতারণার বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক আন্দোলন শুরু হবে।