সাধারণতন্ত্র দিবসে বাংলায় ট্যাবলো বাতিলকে সমর্থন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসুর

নিউজ ডেস্ক : বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপের পর সায়ন্তন বসু বাংলার ট্যবলো বালিতেকে পূর্ন সমর্থন করলেন। সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজের অনুষ্ঠানে রাজ্যের কন্যাশ্রী ট্যাবলো বাতিলের সমর্থনে মুখ খুললেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। তিনি বলেছেন, রাজ্যের কন্যাশ্রী ট্যাবলো রাজ্য তথা দেশকে নিচু দেখানোর চেষ্টা করছে। তাই তাকে বাতিল করে কেন্দ্রীয় সরকার সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রসঙ্গত, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের সমর্থন করেছেন। এবার সেই পথে হেঁটে মন্তব্য বিজেপি নেতার।

উল্লেখ্য, ২০১৮-তেও রাজ্যের ট্যাবলো বাদ পড়েছিল দিল্লির সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে। এবছর কন্যাশ্রী ট্যাবলো রাখার পরিকল্পনা নিয়েছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে তা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। যা নিয়ে চলছে চরম বিতর্ক। সায়ন্তন বসুর মতে, কন্যাশ্রী প্রকল্পে দেশকে নিচু করে দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হলে সিএএ ও এনআরসি-সহ ১০টি সাংগঠনিক জেলার মণ্ডল সভাপতি ও জেলা সভাপতিদের নিয়ে সাংগঠনিক বৈঠকে যোগ দিতে এসেছিলেন সায়ন্তন বসু। বিরোধী দলগুলি সিএএ ও এনআরসি নিয়ে ব্যাপক প্রচার চালাচ্ছে। পালটা রণকৌশল নিয়ে মানুষের কাছে ওই আইনের ইতিবাচক দিকগুলি তুলে ধরতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

পালটা প্রচারের জন্য দলীয় নেতৃত্বকে প্রশিক্ষণ দেওয়ারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সায়ন্তন বলেছেন, সিএএ নিয়ে মিথ্যা প্রচার করছে বিরোধীরা। এর পাশাপাশি রেলভাড়া বৃদ্ধি নিয়েও বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য, যারা রেলভাড়ার বিরোধিতা করছেন তারা আগে বিদ্যুতের মাশুল কমিয়ে দেখাক। বিজেপি ক্ষমতায় এলে বিদ্যুতের মূল্য অনেকটাই কমিয়ে দেওয়া হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি