বিদায় নিলেন বারুইপুরের কমরেড তপন ভট্টাচার্য

 

  • নিজস্ব প্রতিনিধি, পিএম নিউজ ৩৬৫: সিপিআইএম এর দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা কমিটির প্রাক্তন সদস্য এবং মার্কসবাদী তাত্ত্বিক ও রাজনৈতিক শিক্ষক তপন ভট্টাচার্য প্রয়াত হয়েছেন। বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।
    সোমবার রাতে কলকাতার ফুলবাগানে একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর জীবনাবসান হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের ক্যান্সারে ভুগছিলেন। তাঁর বাড়ি বারুইপুরের কুলপি রোড এলাকায়।

তপন ভট্টাচার্য কর্মজীবনে বারুইপুর মদারাট পপুলার একাডেমিতে শিক্ষকতা করেন। তিনি বারুইপুর পৌরসভার প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি একসময় পার্টির সোনারপুর বারুইপুর জোনাল কমিটির সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ‘দ্বন্দ্বমূলক বস্তুবাদ’ এবং ইংরেজিতে ‘ডায়ালেকটিক্যাল মেটিরিয়ালিজম’ নামে তাঁর দুটি পুস্তকও প্রকাশিত হয়েছে।
তাঁর পোশাকী নাম ছিল ‘তপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য’। তিনি ১৯৬৫ সালে সিপিআইএমের সদস্যপদ অর্জন করেন। তাঁর জীবনাবসানে সিপিআইএম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী শোকজ্ঞাপন করে বলেছেন,”প্রবীণ পার্টি নেতা কমরেড তপেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যকে মার্কসবাদী তাত্ত্বিক হিসাবে জেলায় সবাই চিনতেন। তাঁর প্রয়াণে পার্টির রাজনৈতিক শিক্ষাক্ষেত্রে জেলাতে খুবই ক্ষতি হল”।
সিপিআইএম এর দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা সম্পাদক শমীক লাহিড়ী গভীর শোকপ্রকাশ করেন ও তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

মঙ্গলবার প্রয়াত নেতার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান সিপিআইএম নেতা রাহুল ঘোষ, তুষার ঘোষ, অলোক ভট্টাচার্য, হেমেন মজুমদার, গৌতম চক্রবর্তীসহ অগণিত পার্টির কর্মী, সমর্থকরা।

প্রয়াত নেতার শবদেহ নিয়ে কীর্তনখোলা শ্মশানে তাঁর শেষ কৃত্য হয়।