৩৬ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিয়ে কাশ্মীর যাচ্ছে বিজেপি, কিন্তু বিরোধীদের যাওয়া নিষিদ্ধ!

নিউজ ডেস্ক : কাশ্মীর যাত্রা বিজেপির, অমিত শাহের উদ্যোগে ৩৬ জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কাশ্মীর যাত্রা হতে চলেছে। এই যাত্রার লক্ষ্য ভ্রমণ নয়, ৩৭০ ধারা বাতিলের কার্যকারিতা বোঝানো। সূত্রের খবর, কেন্দ্র শাসিত জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন জেলায় ঘুরে ঘুরে মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন তাঁরা।

২০১৯– এর আগস্টে জম্মু-কাশ্মীরে সংবিধানের ৩৭০ ধারা ও ৩৫এ উপধারা বাতিল করেছিল কেন্দ্র৷ তাই নিয়ে উত্তাল হয়ে গিয়েছিল কাশ্মীর। তারপর ধীরে ধীরে বন্ধ করা হয়েছিল ইন্টারনেট পরিষেবা, মোতায়েন করা হয়েছিল সেনা। সেই অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতেই আগামী ১৮ জানুয়ারি থেকে ২৪ জানুয়ারি কাশ্মীর যাত্রার পরিকল্পনা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

জম্মু-কাশ্মীরের উপদ্রুত এলাকাগুলিতেও তাঁরা যাবেন৷ জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যসচিব বিভিআর সুব্রহ্মণ্যমকে চিঠি লিখে জানানো হয়েছে এই পরিকল্পনার কথা। সরকারি সূ্ত্রে খবর, এই পদক্ষেপের মূল উদ্দেশ্য হল উন্নয়ন। জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে গিয়ে দেখা হবে সেখানকার পরিস্থিতি কীরকম। সেই বুঝে কেন্দ্রীয় নীতি প্রণয়নের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই যাত্রার একটি প্রাথমিক তালিকা তৈরি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ১৯ জানুয়ারি স্মৃতি ইরানি যাবেন রায়েসি জেলার কাটরা ও পান্থাল এলাকায়৷ সেদিনই পীযুষ ‌গোয়েল যাবেন শ্রীনগরে৷ ২২ জানুয়ারি জি কিষাণ রেড্ডি যাবেন গন্ডেরবালে ও ২৩ তারিখে মণিগাঁওয়ে৷ ২৪ জানুয়ারি রবিশঙ্কর প্রসাদ থাকবেন বারামুলা জেলার সোপোরে৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি কে সিং ২০ জানুয়ারি যাবেন উধমপুরের টিকরিতে ও কিরেন রিজিজু ২১ তারিখ যাবেন জম্মুর সুচেতগরে৷ কিন্তু এই তালিকাটি সম্পূর্ণ হবে ১৭ তারিখের বৈঠকের পরে।