নিবেদিতা মুখার্জিকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করলো সর্বধর্ম সমন্বয় সভা

পিএম নিউজ 365, আসাম:- সর্বধর্ম সদ্ভাব সমিতির প্রতিষ্ঠাতা তথা হরিয়ানা রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী স্বামী অগ্নিবেশজী মহারাজ, করিমগঞ্জ জেলা বিজেপির পিতামহ সর্বজন শ্রদ্ধেয় রথীন্দ্র ভট্টাচার্য, কুশিয়ারকুল উচ্চতর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সহায়ক (এসএ) নিবেদিতা শর্মা মুখার্জিকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করল বরাক উপত্যকা সর্বধর্ম সমন্বয় সভা’র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ। প্রয়াত ব্যক্তিত্রয়ের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে সংস্থার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আমির হোসেন বলেন, স্বামী অগ্নিবেশজী মহারাজ আজীবন ভ্রাতৃত্বের কথা বলেছেন, মানবতার বার্তা দিয়েছেন। সর্বধর্ম সমন্বয় সভার একজন খাঁটি শুভানুধ্যায়ী ছিলেন তিনি।

 

নিবেদিতা শর্মা মুখার্জি শিক্ষকতার পাশাপাশি সামাজিক-সাংস্কৃতিক জগতেও অবদান রেখেছেন। বরাক নন্দিনী, ইনার হুইল ক্লাব সহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন তিনি। আমির হোসেন বলেন, রথীন্দ্র ভট্টাচার্য ২০১৫ সালের ৫ নভেম্বর থেকে বরাক উপত্যকা সর্বধর্ম সমন্বয় সভা’র কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মানীয় সদস্য পদে ছিলেন। সংস্থার তালিকায় ১৫২ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বের মধ্যে ৬৬ নম্বরে স্থান ছিল রথীন্দ্র ভট্টাচার্যের। তাঁর প্রয়াণে সংস্থা গভীর শোকাহত ও মর্মাহত। তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনার সাথেসাথে পরিবারবর্গকে আন্তরিক সমবেদনা জানানো হয় সংস্থার পক্ষ থেকে। আমির হোসেন আরও বলেন, প্রয়াত রথীন্দ্র ভট্টাচার্য বাবুর কিছু কথা সর্বধর্ম সমন্বয় সভায় চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে, কোনো বিষয়ে তাঁর কাছে ফোন করলে তিনি বিনয় সহকারে প্রায়ই বলতেন ‘সর্বধর্ম সমন্বয়ের কার্যালয়টা আমি অসুস্থ মানুষের পক্ষে অনেক দুর হয়ে যায়, তাই সকল অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারি না। আমির, তোমরা চিন্তা করোনা, আমি সবসময় তোমাদের সঙ্গে আছি। আমি ঈশ্বরের কাছে সর্বদা প্রার্থনা করি তোমাদের বৃহত্তর কর্মপ্রয়াসের অগ্রগতির জন্য’। সর্বধর্ম সমন্বয় প্রেমী এই মানুষটাকে সর্বদা অনুসরণ করবে বরাক উপত্যকা সর্বধর্ম সমন্বয় সভা বলেন সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আমির হোসেন।