ছেলে সরকারি কর্মচারী, উলঙ্গ অবস্থায় মৃত মা

 

ছেলে সরকারি কর্মচারী, উলঙ্গ অবস্থায় মৃত মা

পি.এম.নিউজ ৩৬৫;ডিজিটাল ডেস্ক:সারা বাংলা জুড়ে এখন খুশির আমেজ। চলছে বাঙালির দুর্গা-পূজো উৎসব। আজ সপ্তমী এরকম এক খুশির দিনে বড় বিব্রতকর এক ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এক বৃদ্ধ মা উপুড় হয়ে মৃত অবস্থায় পড়ে আছেন। ছবিটি যেন প্রশ্ন করছে, আদৌ কি আমাদের মধ্যে এখন একটুও মনুষ্যত্ব বেঁচে আছে?

জানা গিয়েছে, মৃতা বৃদ্ধার নাম নন্দরানী গাংগুলী। বাড়ি বাঁকুড়া জেলার হেলনা শুশুনিয়া গ্রামে। তাঁর তিন ছেলে আছে। যাদের মধ্যে বড় দুজন আবার সরকারী অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী। তিন ছেলের নাম হল সুভাষ চন্দ, শিবদাস এবং জীবন।

ছেলেরা আর্থিক দিক দিয়ে যথেষ্ট সচ্ছল। কিন্তু মায়ের বোঝা কেউ ঘাড়ে নিতে চাইনি! ফলে মা গ্রামের বাড়িতে একাই থাকতেন।

বৃদ্ধা মা ছিলেন প্রচণ্ড অসুস্থ। গ্রামের লোকেরা গত পাঁচদিন ধরে খবর দেওয়া সত্ত্বেও কোন ছেলে বৃদ্ধা মাকে দেখতে পর্যন্ত আসেনি।

ছেলেরা কিন্তু বেশি দূরে থাকতেন না। তাঁরা মাত্র ১০ কিমি দূরে বাঁকুড়া শহরে থাকেন। একেবারে অবহেলায় দূর্গা পূজার দিনে ঘরে মরে পড়ে আছেন। হয়তো শেষ কয়েকদিন কোনো খাবারই পেটে পড়েনি।